1. admin@dailymuktirshongbadbd.com : Dailymuktirshongbadofficial :
  2. mridapress@gmail.com : mridapress@gmail.com :
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০৮ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
আপনার সংবাদ প্রচারে বিজ্ঞাপন দিন
শিরোনামঃ
হীড বাংলাদেশ নামক প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক এর আজ শুভ জন্মদিন বরগুনায় যুদ্ধ অপরাধী ও রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি/নিউজ বরগুনায় ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা ও ইলিশ উৎসব ২০২২ অনুষ্ঠিত/ মুক্তির সংবাদ গৌরনদীতে অসহায় পরিবারের পানের বরজ ভাংচুর ও জমি দখল, ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে সময়িক রক্ষা মেলে সমাজ উন্নয়ন অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন গোল্ডেন ঈগল ওপেন এয়ার স্কাউট গ্রুপের স্কাউট সদস্য মো: তানভীর নেওয়াজ পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যু প্রতিরোধ বিষয়ক সাংবাদিকদের /news বকেয়া দুই মাসের বেতন উদ্ধার ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দামের সহযোগিতায়। কালশী বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে আগুন নিভানো ও উদ্ধার কাজে রোভার স্কাউটদের অংশগ্রহণ। পাথরঘাটায় দেওয়ানি মামলা চলমান” জোরপূর্বক জমি দখলের পাঁয়তারা বরগুনা জেলা সংবাদদাতা: বরগুনার পাথরঘাটায় জোরপূর্বক জমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে এলাকার প্রভাবশালী ভুমি দস্যু শাহ আলম খান গংদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি পাথরঘাটা পৌর সভার ৯নং ওয়ার্ডে। এব্যাপারে ভুক্তভোগী মোঃ জব্বার হাওলাদার গংরা মোকাম বরগুনা ,পাথরঘাটা সহকারী জজ আদালতে (স্বত্ত্ব ঘোষণা সহ বন্টন) ৩৪৭ জনকে বিবাদী করে দেওয়ানি মোকদ্দমা নং ১৯৪/২০২১ ইং মামলা দায়ের করেছেন। উক্ত মোকদ্দমা টি চলমান রয়েছে। প্রতিপক্ষ শাহ আলম খান আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল না হয়ে জোর পূর্বক জব্বার হাওলাদার গংদের কবলা ও রেকর্ডিও মালিকানা প্রায় ২০০ বছরের ভোগদখলীয় জমি দখলের পাঁয়তারা করেন জানান ভুক্তভোগীরা। স্থানীয়রা বলেন , দীর্ঘদিন যাবত জব্বার গংরা জমি চাষাবাদ ও বসতবাড়ি নির্মাণ করে আসছে। কিন্তু শাহ আলম গংরা জমি পাবেনা বুঝতে পেরেই এক শ্রেণীর অসাধু কুচক্রী মহলের দ্বারপ্রান্ত হয়ে শাহ আলম খান গংদের পক্ষের মরিয়ম নামের একজন জমির মালিক সেজে কাগজপত্র বিহীন গত ০২ আগষ্ট ২০২২ ইং তরিকুল ইসলাম আসাদুজ্জামান নামের এক ব্যক্তিকে বায়না রেজিস্ট্রি করে দেন জব্বার হাওলাদার গংদের ভোগদখলীয় জমি । ক্ষমতাসীনরা ভুয়া বায়না কাগজপত্র পেয়ে ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে দেওয়ানি বন্টন মামলা চলমান থাকার পরেও তারা জমি দখলের পাঁয়তারা চালায়। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী মোঃ জব্বার হাওলাদার গংরা প্রশাসনের সহযোগিতা চান। তবে অভিযুক্ত শাহ আলম খান গংরা, উল্লেখিত দেওয়ানি মামলায় এপিয়ার হয়েছেন বলে জানান তারা। মুক্তির সংবাদ গাজীপুর মহানগর কাশিমপুর উপজেলার ৩ নং ওয়ার্ড এর মানবতার সেবক ইদ্রিস মোল্লা

নবীগঞ্জের ইনাতগঞ্জে থানা বাস্তবায়ন কমিটি গঠন’কে কেন্দ্র করে ফুসেঁ উঠেছে দু’ ইউনিয়নবাসী বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ//মুক্তির সংবাদ

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন, ২০২২
  • ১০৭ এতক্ষন দেখবেন

জাফর ইকবাল
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি।।

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাড়িঁকে থানায় রূপান্তরিত করার জন্য থানা বাস্তবায়ন কমিটি গঠনের খবর পেয়ে ফুসেঁ উঠেছে উপজেলা বড় ভাকৈর পুর্ব ও পশ্চিম ইউনিয়নবাসী। শুরু হয়েছে প্রতিবাদের ঝড়। ওই দু’ ইউনিয়নের জনসাধারন কোনভাবেই ইনাতগঞ্জ থানার অধীনে থাকতে নারাজ। তারা নবীগঞ্জ থানার অধীনে থাকলেই সম্মানজনক নিরাপধে থাকবেন বলে অভিমত প্রকাশ করেছেন। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার বড় ভাকৈর (পুর্ব) ইউনিয়নবাসী উদ্যোগে কাজীর বাজারস্থ প্রাইমারী স্কুলে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্টিত হয়। সাবেক চেয়ারম্যান মেহের আলী মালদার এর সভাপতিত্বে এবং ছাদিকুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্টিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আব্দুর রুপ, আব্দুল্লাহ মিয়া, বীরমুক্তিযোদ্ধা আফছর উল্লা, সাদেক আলী মাজু, জাকারিয়া হোসেন বকুল, ফয়ছল আহমেদ, আলতাফুর রহমান, সাবেক মেম্বার আব্দুর রুপ, সাবেক মেম্বার বশর উদ্দিন, সাবেক মেম্বার আনোয়ার হোসেন, বশর মিয়া, সাবেক মেম্বার ইমান উদ্দিন, আব্দুস সাফি, আব্দুন নুর, দিদার আহমেদ, সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান খালেদ মোশারফ, আব্দাল মিয়া নুরই মিয়া প্রমূখ। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ৪টি ইউনিয়ন নিয়ে ইনাতগঞ্জে থানা বাস্তবায়ন হলে ২নং বড় ভাকৈর (পুর্ব) ইউনিয়নবাসী ওই থানার অধীনে অন্তরভুক্তি থাকতে চাই না। কারন আইন শৃংখলাজনিত বা আইনী সেবা সেবা নেয়ার জন্য ইনাতগঞ্জ গেলে থানায় আসা যাওয়ার সময় অনেক নাজেহাল হতে হওয়ার আশংখ্যা রয়েছে। ফলে নবীগঞ্জ থানাই আমাদের জন্য নিরাপধ। তারা বলেন, সরকারী সিদ্ধান্তের কারনে যদি ৪টি ইউনিয়ন নিয়ে যদি থানা স্থাপিত হয়, তাহলে সে থানা ২নং ইউপির কাজীর বাজারে হউক। অন্যতায় ১ ও ২ নং ইউনিয়নবাসী ইনাগঞ্জের অধীনে থানা বাস্তবায়ন দেখতে চান না।
উল্লেখ্য, উপজেলা ১, ২, ৩ ও ৪ নং ইউনিয়ন নিয়ে একটি থানা বাস্তাবায়নের জন্য ইনাতগঞ্জে এক মিটিং হয়। উক্ত মিটিংয়ে থানা বাস্তাবায়ন একটি কমিটি গঠিত হয়েছে। ইনাতগঞ্জে থানা বাস্তবায়নে উক্ত কমিটিতে ১নং ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সত্যজিত দাশ ২ নং ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন ছুবা ও সাবেক চেয়ারম্যান আশিক মিয়ার সম্মতিসহ স্বাক্ষর রয়েছে। এই খবর ওই দু ইউনিয়নে জানাজানি হলে ইউনিয়নবাসী ফুসেঁ উঠেন। শুরু হয় নানা আলোচনা সমালোচনা। প্রতিবাদের ঝড় উঠে গ্রাম পর্যায়ে। সাধারণ মানুষের দাবী একটাই ওই দু ইউনিয়নবাসী ইনাতগঞ্জে থানা স্থাপনের পক্ষে নয়। থানা হতে হলে ৪টি ইউনিয়নের মধ্যবর্তী স্থান কাজীর বাজারে হউক। নতুবা তারা নবীগঞ্জ থানার অধীনে থাকতে চান। এর হেরফের হলে তারা গ্রামে গ্রামে দুর্বার আন্দোলনসহ বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। এ ছাড়া উক্ত প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে ইনাতগঞ্জ থানা হলে ্ওই থানার অধীনে যাহাতে তাদের রাখা না হয় এ বিষয়ে দু ইউনিয়নবাসী গণ স্বাক্ষর নিয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আবেদন জানাবেন। পাশাপাশি মানববন্ধনসহ সভা-সমাবেশ অব্যাহত থাকবে বলেও তারা জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর

পাথরঘাটায় দেওয়ানি মামলা চলমান” জোরপূর্বক জমি দখলের পাঁয়তারা বরগুনা জেলা সংবাদদাতা: বরগুনার পাথরঘাটায় জোরপূর্বক জমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে এলাকার প্রভাবশালী ভুমি দস্যু শাহ আলম খান গংদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি পাথরঘাটা পৌর সভার ৯নং ওয়ার্ডে। এব্যাপারে ভুক্তভোগী মোঃ জব্বার হাওলাদার গংরা মোকাম বরগুনা ,পাথরঘাটা সহকারী জজ আদালতে (স্বত্ত্ব ঘোষণা সহ বন্টন) ৩৪৭ জনকে বিবাদী করে দেওয়ানি মোকদ্দমা নং ১৯৪/২০২১ ইং মামলা দায়ের করেছেন। উক্ত মোকদ্দমা টি চলমান রয়েছে। প্রতিপক্ষ শাহ আলম খান আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল না হয়ে জোর পূর্বক জব্বার হাওলাদার গংদের কবলা ও রেকর্ডিও মালিকানা প্রায় ২০০ বছরের ভোগদখলীয় জমি দখলের পাঁয়তারা করেন জানান ভুক্তভোগীরা। স্থানীয়রা বলেন , দীর্ঘদিন যাবত জব্বার গংরা জমি চাষাবাদ ও বসতবাড়ি নির্মাণ করে আসছে। কিন্তু শাহ আলম গংরা জমি পাবেনা বুঝতে পেরেই এক শ্রেণীর অসাধু কুচক্রী মহলের দ্বারপ্রান্ত হয়ে শাহ আলম খান গংদের পক্ষের মরিয়ম নামের একজন জমির মালিক সেজে কাগজপত্র বিহীন গত ০২ আগষ্ট ২০২২ ইং তরিকুল ইসলাম আসাদুজ্জামান নামের এক ব্যক্তিকে বায়না রেজিস্ট্রি করে দেন জব্বার হাওলাদার গংদের ভোগদখলীয় জমি । ক্ষমতাসীনরা ভুয়া বায়না কাগজপত্র পেয়ে ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে দেওয়ানি বন্টন মামলা চলমান থাকার পরেও তারা জমি দখলের পাঁয়তারা চালায়। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী মোঃ জব্বার হাওলাদার গংরা প্রশাসনের সহযোগিতা চান। তবে অভিযুক্ত শাহ আলম খান গংরা, উল্লেখিত দেওয়ানি মামলায় এপিয়ার হয়েছেন বলে জানান তারা। মুক্তির সংবাদ