1. admin@dailymuktirshongbadbd.com : Dailymuktirshongbadofficial :
  2. mridapress@gmail.com : mridapress@gmail.com :
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৩:৪০ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
আপনার সংবাদ প্রচারে বিজ্ঞাপন দিন
শিরোনামঃ
কিছু দুশ্চরিত্র লোক মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আমার সম্মান ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করছেন। পদ্মা সেতু” উন্মোচনে বেনাপোল পোর্টথানার আনন্দ // মুক্তির সংবাদ বামনায় মেডিকেল পড়ুয়া শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম বেনাপোলে ১০টি সোনার বারসহ বিজিবি হাতে স্বর্ণ পাচারকারী আটক //মুক্তির সংবাদ বরগুনার বামনায় ধার দেওয়ার টাকা চাওয়ায় মামলায় দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। নবীগঞ্জের ইনাতগঞ্জে থানা বাস্তবায়ন কমিটি গঠন’কে কেন্দ্র করে ফুসেঁ উঠেছে দু’ ইউনিয়নবাসী বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ//মুক্তির সংবাদ বেনাপোলে আমদানি পণ্যবাহী ভারতীয় ট্রাক থেকে মাদক সহ অবৈধ পণ্য উদ্ধার/মুক্তির সংবাদ যশোর ডিবির বিশেষ অভিযানে দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক। মুক্তির সংবাদ বেনাপোলে টাকা উদ্ধার সহ পাসপোর্ট যাত্রীর সোনার চেইন ছিনতাইকারী আটক//মুক্তির সংবাদ শার্শার নাভারনে বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, ছুরিকাঘাতে যুবক আহত, বোমা বিস্ফোরণ””মুক্তির সংবাদ

বরগুনার আমতলীতে তিন ব্যক্তি (কথিত চিকিৎসক) মোবাইল কোর্টে জরিমানা, মুচলেকা প্রদান। মুক্তির সংবাদ

  • আপডেট সময় শনিবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৯৩ এতক্ষন দেখবেন


বরগুনা জেলা প্রতিনিধি:
বরগুনার আমতলী পৌর শহরের তিন ব্যক্তি (কথিত চিকিৎিসক) কেএম আসাদুজ্জামান জাফর, এলাহি মোল্লা ও কেশব চন্দ্র শীলকে অপচিকিৎসা, চিকিৎসা দেওয়ার বৈধতা না থাকার কারনে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। ওই তিন ব্যক্তি আর কোন দিন কাউকে কোন প্রকার চিকিৎসা দিবে না বলে মুচলেকা প্রদান করেছে। ওই তিন ব্যক্তি আমতলী পৌর শহরের বিভিন্ন স্থানে ব্যক্তিগত চেম্বার বসিয়ে চিকিৎসার নামে সাধারণ মানুষকে অপচিকিৎসা দিয়ে আসছে।

জানা গেছে, আজ (শনিবার) সন্ধ্যায় আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ নাজমুল ইসলাম আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ সুমন খন্দকার, ডাঃ তানজিরুল ইসলাম নেতৃত্বে থানা পুলিশের সহায়তায় চিকিৎসা দেওয়ার কোন প্রকার বৈধতা না থাকার মহিলা কলেজ রোড থেকে কেএম আসাদুজ্জামান জাফর, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে থেকে এলাহি মোল্লা এবং আমতলী সরকারী কলেজের সামনে কেশব চন্দ্র শীলকে আটক করে। পরে তাদের চিকিৎসা দেওয়ার বৈধ কাগজপত্র যাচাই- বাচাই করা হয়। আটক তিন ব্যক্তির চিকিৎসা দেওয়ার কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৫৩ ধারায় নামধারী কথিত ডাঃ কেএম আসাদুজ্জামান জাফরকে ৫ হাজার, এলাহি মোল্লাকে ৮ হাজার ও কেশব চন্দ্র শীলকে ৭ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এসময় আটক ওই তিন ব্যক্তি এতদিন বিধি বর্হিভূত ভাবে সাধারণ মানুষকে যে চিকিৎসা দিয়ে আসছে তার জন্য দুঃখ ও ক্ষমা চেয়ে ভবিষৎতে আর কোন দিন চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসা দিবেন না বলে নিজ হাতে মুচলেকা প্রদান করেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ সুমন খন্দকার বলেন, ওই তিন ব্যক্তির চিকিৎসা দেওয়ার কোন বৈধতাই নেই। অথচ তারা দীর্ঘদিন ধরে ব্যক্তিগত চেম্বার নিয়ে প্রকাশ্যে রোগী দেখছেন।
সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ নাজমুল ইসলাম বলেন, আটক তিন ব্যক্তিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৫৩ ধারায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও আর কোন দিন চিকিৎসা দিবে না বলে মুচলেকা প্রদান করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটেগরির আরও খবর