1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. miliakthar868@gmail.com : Editor :
  3. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  4. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:০২ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

হবিগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী কুশিয়ারা নদীতে টানা বৃষ্টি কারণে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে পানি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে দৈনিক মুক্তির সংবাদ 

  • খবর পাবলিসের সময় শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৪৭ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

 

 

মোঃ জাফর ইকবাল হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।।

 

হবিগঞ্জে নবীগঞ্জে টানা বৃষ্টি কাণে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কুশিয়ারা নদীর পানি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। নদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে আতঙ্ক ও উৎকন্ঠায় সময় পার করছেন হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাক ও আউশকান্দি ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামের নদী তীরবর্তী লোকজন। পানি আরও বৃদ্ধি পেলে বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

 

শুক্রবার (২ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫টায় নবীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন কুশিয়ার নদীর তীরবর্তী দীঘলবাক ইউনিয়নের দীঘলবাক গ্রাম ও আউশকান্দি ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামের ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ পরিদর্শন করেন।

 

 

 

জানা যায়, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি ও উজানের পাহাড়ি ঢলে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে নদীর তীরবর্তী এলাকায় বসবাসকারী মানুষের মনে। কুশিয়ারার পানিও ক্রামাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। খবর পেয়ে শুক্রবার বিকেলে নবীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন দীঘলবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ এওলা মিয়া ও আউশকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুনসহ জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে সরেজমিনে দীঘলবাক ইউনিয়নের দীঘলবাক গ্রাম ও আউশকান্দি ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামের কুশিয়ারা নদীর ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ এলাকা পরিদর্শন করেন।

 

 

 

দীঘলবাক গ্রামের এলাইছ জানান, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের ফলে কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি। নদীর পাড়ের অনেকাংশে ভাঙন দেখা দিয়েছে।

 

 

 

দীঘলবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ এওলা মিয়া বলেন, নদীর পানি যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে, এই ধারা অব্যাহত থাকলে বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

 

এ প্রসঙ্গে নবীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিন বলেন, নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। যদি ক্রমাগত পানি বৃদ্ধি পেতে থাকে, তাহলে বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ইতোমধ্যে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। তারা জানিয়েছে বাঁধ এলাকা পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শাহানেওয়াজ তালুকদার বলেন, বর্তমানে কুশিয়ারার পানি বিপদসীমার নিছে রয়েছে।

 

 

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর