1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

হবিগঞ্জে থামছে না প্রভাবশালীদের দৌরাত্ম্য নীরব কাঁদছে কুশিয়ারা// দৈনিক মুক্তির সংবাদ

  • খবর পাবলিসের সময় মঙ্গলবার, ২ মার্চ, ২০২১
  • ১১৩ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

 

মোঃ জাফর ইকবাল হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।

 

সরকারি নিষেধাজ্ঞা ও উচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নে, ঐতিহ্যবাহী কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের মহোৎসব চলছে। জনসাধারণের রাস্তা চলাচলে দুর্ভোগ ও ফসলি জমি রক্ষায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অভিযোগ দিয়েও কোনো প্রতিকার পায়নি এলাকাবাসী। অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে মন্ত্রিপরিষদের কড়া নির্দেশ উপেক্ষা করে নদী থেকে মাটি ও বালু উত্তোলন করছে একটি দুষ্টচক্র। সরেজমিনে নবীগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী কুশিয়ারা নদীর বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে ট্রলিতে বালু উত্তোলন ও মাটি কেটে পরিবহনের প্রতিযোগিতা চলছে। বালু ও মাটি ব্যবসায়ী একটি দুষ্টচক্র নদী থেকে প্রতিদিন শত শত ট্রলি মাটি ও বালু উত্তোলন করেছে। ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের তহসিল অফিসের যোগসাজেসের আলোচনায় রয়েছে। তহসিল অফিসের জনৈক ব্যাক্তি কে বড় অংকের টাকা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয়দের ফলে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছে দুষ্টচক্র। প্রতি বছর হুমকিতে পড়ছে কুশিয়ারা নদীর বাঁধ বর্ষা মৌসুমে।বাঁধ নির্মাণে সরকার ব্যয় করছে কোটি কোটি টাকা।তীরবর্তী এলাকার বাসিন্দারা জানান অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারণে প্রাকৃতিক সম্পদ ধ্বংসের পাশাপাশি হুমকির মুখে পড়েছেন নদীর পাশ্ববর্তী বাসিন্দারা।

ঐতিহ্যবাহী কুশিয়ারা নদীর বুক ছিড়ে কালো টাকার মালিক গণের নাম- রাসেল মিয়া ওরফে কটাই মিয়া( পিতা) সুরুজ উল্লাহ, সুনাম মিয়া (পিতা) ইরাজ উল্লাহ, সায়েম আলী, সুমেল আহমেদ, আল আমিন গংরা প্রায় কয়েক শ শ্রমিক কে দিয়ে ধর্ষণ করছে ঐতিহ্যবাহী কুশিয়ারা নদী কে ফলে নস্ট হচ্ছে এলাকার সুন্দরর্য।এহেন বিষয়ে বালু খেকো রাসেলের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে রাসেল জানান আমরা কেটে খাওয়া মানুষ আপনারা কিসের জন্য গরীবদের কে নিয়ে লেখালেখি করছেন।

সচেতম মহলের দাবি কুশিয়ারা নদীর তীর কেটে খাওয়া মানুষের সাথে থাকা রাঘববোয়াল কে সংবাদকর্মীরা খুঁজে বেড় করে জাতির কাছে তুলে ধরবে আশাবাদী, নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক কসবা গ্রামের জনৈক যুবক জানায়

অবৈধ ভাবে ঐতিহ্যবাহী কুশিয়ারা নদীর বালু ও মাটি কাটার পেছনে রাজনৈতিক নেতার কিছু প্রভাব রয়েছ।এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিন এর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, জেল/জরিমানা হয়েছে ও আমাদের অভিযান চলছে, তবে আমরা কুশিয়ারা নদীর পাশে যাওয়ার আগেই পালিয়ে যায় বালু খেকোরা।

নির্বাহী কর্মকর্তা আরো জানান রাতে যে বালু তুলা হচ্ছে সেটি একটি সিন্ডিকেট তৈরী করে বালু নৌকায় করে নদীর আশপাশের উপজেলা দিয়ে চলে যায়, আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পারিনা ধরতে বালু খেকোদের কারণ ওরা পানির উপর নৌকা চালিয়ে যায়, আমরা উপস্থিত সময়ে নৌকা কোথায় পাই।নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন এহেন বিষয়ে নদীর আশপাশের উপজেলাবাসী যদি আমাদের সহযোগীতা করেন তাহলে বালু খেকোদের ধরতে পারবো।

 

 

 

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর