1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০২:৩৯ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর করায় ঠাকুরগাঁও জেলা পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রতিবাদ সমাবেশ

  • খবর পাবলিসের সময় শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৬১ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

মো: সোহেল রানা, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

“জাতির পিতার সম্মান রাখবো মোরা অম্লান”-এ স্লোগানকে সামনে নিয়ে কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর ও অবমাননাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে জেলা পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
শনিবার (১২ ডিসেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত সমাবেশে জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা দায়রা জর্জ মামুনুর রশিদ, সিভিল সার্জন ডা: মাহফুজার রহমান সরকার, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার কামাল হোসেন , ঠাকুরগাঁও সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আবু বকর ছিদ্দিক, কৃষিসম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আফতাব হোসেনসহ জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাগণ।

এসময় সভাপতিত্বের বক্তব্যে জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর একটি ন্যক্কারজনক ঘটনা। এটি শুধু একজনের উপরে আক্রমণ নয়। এটা আমাদের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও সংবিধানের উপর আক্রমণ করা হয়েছে। তাই ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে আমাদের প্রত্যাক নাগরিকের এই ন্যক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ করা নৈতিক ও সাংবিধানিক দায়িত্ব। তাই আমরা সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দায়িত্ববোধ থেকে সারা বাংলাদেশে একযোগে এই প্রতিবাদের আয়োজন করেছি। এই আক্রমণে আমরা ঘরে চুপ করে বসে থাকতে পারিনা। আমরা যদি চুপ করে বসে থাকি তাহলে আমাদের কারও অস্তিত্ব ঠিক থাকবে না। সকলেই অস্তিত্বহীন হয়ে যাব। স্বাধীনতার যুুদ্ধের সময় যেমন সকল শ্রেণীর মানুষ এক কাতারে মিলিত হয়ে যুদ্ধ করে অপশক্তিকে রোধ করেছিল। ঠিক একইভাবে আমরাও সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীরাও ঘরে বসে থাকবো না।

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর