1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১:১২ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

হবিগঞ্জ পি ডি বি সাবইষ্ট ইঞ্জিনিয়ার ইমান হোসেন, এসিষ্টেন এক্সেন কবির হোসেন এর বিরুদ্ধে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উটেছে।

  • খবর পাবলিসের সময় বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৮৫ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

শাহেনা আক্তার উপজেলা প্রতিনিধি সিলেট :
হবিগঞ্জ শহরে পিডিবি,র সাবইষ্ট ইঞ্জিনিয়ার ইমাম হোসেন, এসিষ্টেন এক্সেন কবির হোসেন এর বিরুদ্ধে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উটেছে। অভিযোগ প্রাকাশ,হবিগঞ্জ শহরের গোসাই পুর এলাকার বাসিন্দা মোঃমস্তুুর আলী একজন বিদ্যুৎ গ্রাহক যার মিটার নং ২১৪২৮৯৭ মিটার নাম্বার অনুযায়ী বিল প্রস্তুথ করে পিডিবি এবং সে অনুপাতে বিল পরিশোধ ও করেন মস্তুর আলী। গত ২৯/১০/২০ ইং তারিখে পিডিবি সাব ইন্জিনিয়া ইমাম হোসেন মিটারটি পরিদর্শন করে তাকে জানান মিটারটি অবৈধ। পরে ইমাম হোসেন উতকোচ দাবি করেন মস্তুুর আলীর কাছে। সে উতকোচ দাবি দিতে অস্বীকার করলে তার বিরুদ্ধে ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার মামলা দেয়া হয়।পরবর্তীতে পিডিবির কর্মকর্তাদের সাথে সমজতা করার নামে মস্তুুর আলীর কাছ থেকে ৮০ হাজার টাকা আদায় করেন মাহবুব মিয়া ও ইমাম হোসেন। এ টাকার রশিদ চাইলে অনেক টালবাহানার পর ৪৬ হাজার ১ শত ২৮ টাকার রশিদ দেওয়া হয়।অবশিষ্ট টাকার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলে ৩৪ হাজার টাকা তাদের টেবিল খরচ। কোন উপায়ন্তর না পেয়ে বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত একটি অভিযোগ দায়ের করেন মস্তুুর আলী। তারপর পোস্ট অফিস রোড আদি খাজা হোটেল হরমুজ আলীর কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় ইমাম হোসেন ও কবির হোসেনের তিন চোর্জ বিষয়টি জানাজানি হলে সেই টাকা ফিরত দিয়ে তাকে অবৈধ লাইন বলে ৩ লক্ষ নব্বই হাজার মামলা দিয়েছে। শহরের নয়াবাদ এলাকার জিতুমিয়া কেও অবৈধ লাইন বলে ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। শহরের হরিপুর এলাকার আলী হোসেন কাছে অবৈধ লাইন বলে ১লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় এব্যাপারে মামলা চলছে। এযেন দেখার কেউ নেই। এভাবে আর অনেকের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উটেছে।

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর