1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

ট্রাম্পের নীতি পরিবর্তনে কাজ শুরু করেছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন

  • খবর পাবলিসের সময় সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৯২ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

প্রতিনিধি সাব্বির

এবার যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন ছিল নজিরবিহীন। কয়েক শতাব্দীর মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বৈশ্বিক মহামারি মধ্যে অভূতপূর্ব পরিস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে এই নির্বাচন। আর নির্বাচনের আগে ও বিজয়ের পর থেকে আলোচনায় আসছে বাইডেন নির্বাচিত হলে কোন কাজটিকে আগে গুরুত্ব দিবেন। করবেনই বা কি কি কাজ, এসব বিষয়। তবে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জো বাইডেন দ্রুত একাধিক কার্যনির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করার পরিকল্পনা নিয়েছেন। ২০ জানুয়ারি শপথ গ্রহণের পরপরেই তিনি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এসব আদেশে স্বাক্ষর করবেন।
নির্বাচিত হওয়ার আগে বিভিন্ন প্রচারণায় যোগ দিয়ে বাইডেন জানিয়েছিলেন, দেশের রাজনীতি বদলে গেছে এবং তিনি প্রেসিডেন্ট হলে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে দেশ পরিচালনা করবেন।

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবেলা সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য পাবে। ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী জো বাইডেন দায়িত্ব নেবার পর সবচেয়ে প্রথম যে পদক্ষেপগুলো নেবেন ইতোমধ্যেই তার পরিকল্পনা ঘোষণা দিয়েছেন। সেই পদক্ষেপে করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবেলা সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য পাবে। তার শিবির থেকে জানানো হয়েছে করোনা-ভাইরাসের পরীক্ষা অনেক বেশি বাড়িয়ে দেয়া হবে এবং মার্কিন নাগরিকদের মাস্ক পরতে বলা হবে।

সেই সাথে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেয়া নীতিমালাগুলোকে যত দ্রুত সম্ভব সংস্কার করবেন তিনি। যদিও ট্রাম্প বলেছেন, বাইডেনের জয় এখনো অনুমান যেহেতু কিছু গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্যে এখনো ব্যালট গণনা চলছে। তবে বাইডেন শিবির জানুয়ারিতে নেওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখেই তাদের পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে।

মার্কিন গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেয়া বেশকিছু বিতর্কিত নির্বাহী আদেশ, যার জন্য কংগ্রেসের অনুমোদন দরকার হয় না, সেগুলোকে আগের অবস্থানে নেবার পরিকল্পনা করছেন জো বাইডেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে বের হয়ে গিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। তাতে আবারও যোগ দেবে দেশটি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে সরে গিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। সেই সিদ্ধান্ত বদলে দেবেন জো বাইডেন। যে সাতটি দেশের নাগরিকদের উপর যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা প্রত্যাহার করা হবে। বারাক ওবামার সময়কার কিছু নীতিকে পুনর্বহাল করবেন। বিশেষ করে শিশু বয়সে যারা কোনো বৈধ কাগজ ছাড়া অভিবাসী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছে তাদের নাগরিকত্ব দেয়া।

জো বাইডেন তার বিজয়ী ভাষণেও আসছে দিনগুলোতে তার নীতিমালা সম্পর্কে কিছুটা ধারনা দিয়েছেন। তার একটি হচ্ছে, ‘আমাদের প্রতিপক্ষকে শত্রু হিসেবে বিবেচনা করা বন্ধ করতে হবে। ’ ভাষণে জো বাইডেন ঐক্য, সহনশীলতা, সহযোগিতার সমাজ গড়ে তোলার আহবান জানান। ভাইস প্রেসিডেন্ট ‘ইলেক্ট’ কমলা হ্যারিসের সাথে মিলে এরই মধ্যে একটি ট্রানজিশন ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন জো বাইডেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের অধীনে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ উপেক্ষা করে করোনা-ভাইরাস মহামারিকে যেভাবে হালকাভাবে দেখা হয়েছে বলে সমালোচনা রয়েছে। বিশেষ করে মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্বকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেয়া হয়নি। যদিও বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রেই।

জো বাইডেন ট্রাম্প প্রশাসনের এসব নীতিমালায় ব্যাপক পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছেন। তার বিজয়ী ভাষণেই একটি বিশেষজ্ঞ দল তৈরির ঘোষণা দিয়েছেন, যারা করোনা-ভাইরাস মহামারি মোকাবেলায় নেতৃত্ব দেবেন। জো বাইডেন মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে চান। সকল মার্কিন নাগরিকদের জন্য নিয়মিত বিনামূল্যে করোনা-ভাইরাসের পরীক্ষার ব্যবস্থা এবং সকলের জন্য বিজ্ঞানভিত্তিক নির্ভরযোগ্য তথ্য ভিত্তিক নির্দেশিকা প্রচলন করতে চান।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত দুই লাখ ৩৭ হাজারের মতো মানুষ করোনা-ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন। করোনা-ভাইরাসের মহামারির কারণে অর্থনীতির যে ক্ষতি হয়েছে তা থেকে ঘুরে দাঁড়াতে নানা পদক্ষেপ পরিকল্পনা হচ্ছে। মঙ্গলবারের বিতর্কে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বারবার জো বাইডেনের বক্তব্যে বাধার সৃষ্টি করেন। বাইডেন তাঁকে ‘ভাঁড়’ বলেও মন্তব্য করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সিএসবি নিউজ বলছে, দুই দিনের মধ্যে একটি নির্দেশিকা তৈরি করার জন্য কাজ শুরু করেছে কমিশন। এর মধ্যে প্রার্থীদের মাইক্রোফোন নিয়ন্ত্রণ করার বিষয়টি প্রাধান্য পাচ্ছে।

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর