1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

মাদকমুক্ত বরগুনা চাই ” সদর থানার (ওসি) কেএম তারিকুল ইসলাম

  • খবর পাবলিসের সময় শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩০৮ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

সোহরাব ব‍্যুরো প্রধান:

দক্ষিন অঞ্চলের উপকুলীয় জেলা বরগুনা। এ জেলা নদী সীমান্তে ঘেঁষার ফলে মাদক, চোরাচালান, অবৈধ কর্মকান্ড লেগেই থাকে । সেইসব কর্মকাণ্ড সামাল দিতে গিয়ে বেশ বেগ পেতে হয় এই জেলায় দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যদের । বর্তমান প্রজন্মের তরুণরা নেশাকে প্যাশন-ফ্যাশন হিসেবে মরণমুখী চর্চায় নিয়োজিত করে ফেলেছে । এইসব বিপথগামী ,উঠতি বয়সী ছেলেরা মরনফাদ হিসেবে শুধু নেশাকে বুকে তুলে নেয়নি । মাদক সেবনে মারাত্মক প্রভাব পড়েছে ।ফলাফল হিসেবে গবেষণায় মারাত্মক উপাত্ত উঠে এসেছে । স্কুল-কলেজ ফাঁকি , পারিবারিক অশান্তি , ইভটিজিং , বখাটেপনা, পড়াশোনায় অমনোযোগী , ছিনতাই , মোবাইল চুরি ,হোন্ডা চুরি সহ বেশ কিছু সামাজিক অপরাধ গবেষণায় উঠে আসছিল।
অন্য দিকে বেকার , অশিক্ষিত , ভবেঘুরেদের চিত্র আরো ভয়াবহ । এরা মাদক সরবরাহ , সীমান্ত হতে মাদক আননে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এই শ্রেণির মানুষ গুলো মাদকের নীল ছোবল গ্রাম থেকে গ্রামে ছড়িয়ে দিয়ে আসছে ।
এখনো যদি পরিপুর্ন ভাবে এই কালো থাবা থামানো না যায় সামনের ভবিষ্যৎ য়ে নতুন প্রজন্ম কে সুস্থ সবল , সুশৃঙ্খল রাখা অসম্ভব । এমতাবস্থায় বরগুনা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন পিপিএম এ জেলায় যোগদান করার পর তার দিকনির্দেশনায় ঐ সমস্ত অপরাধ কমে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় বরগুনা সদর থানা এলাকায় ঐ অপরাধ গুলি জিরোতে এসেছে।
বরগুনা সদর থানার (ওসি) কেএম তারিকুল ইসলাম বলেন, যেহেতু সীমান্তবর্তী জেলা তাই মাদক নির্মূলে কিছু টা সময় লেগেছে । এখনো যারা এই সমস্ত কর্মকান্ডে সাথে জরিত আছে আমরা আমাদের পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি । আশা করছি এ উপজেলাকে মাদকমুক্ত করবো। তাছাড়া প্রতিদিনই বাংলাদেশের মধ্যে সিআইএমএস এন্ট্রিতে বরগুনা সদর থানা প্রথম স্থানে। আপনাদের গনমাধ‍্যমকর্মীদের সার্বিক সহযোগিতা চাই।

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর