1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০১:২২ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

ময়মনসিংহে হতদরিদ্রদের ৩০০ টাকার চাল পেতে গুনতে হচ্ছে ২০০ টাকার কর !

  • খবর পাবলিসের সময় বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৬৫ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

ধ্রুব আলোক, ময়মনসিংহ
১০ টাকা কেজি দরের ৩০০ টাকার চাল পেতে ইউনিয়ন পরিষদকে বাধ্যতামুলক কর দিতে হচ্ছে নগদ ২০০ টাকা! এই কর ছাড়া মিলছে না সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর এই চাল। করের টাকা দিতে না পারায় অনেকে চাল না পেয়ে খালি হাতেই ফিরে গেছেন।

এই অভিযোগ ময়মনসিংহ সদর উপজেলার খাগডহর ইউনিয়নের উপকারভোগীদের।

ইউনিয়ন পরিষদের এমন জুলুমের প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে উপকারভোগীরা আন্দোলনে নেমেছেন রাস্তায়। এ নিয়ে বিব্রত ও হতবাক সরকার দলীয় স্থানীয় নেতা কর্মীরা।

খাগডহর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন খান কর হতদরিদ্রদের কাছ থেকে কর আদায়ের কথা অকপটে স্বীকার জানান, ইউনিয়ন পরিষদের আয় বাড়াতেই এই উদ্যোগ।

আর স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারাও ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে সুর মিলিয়ে জানালেন, কর আদায়ে কোন বিধি নিষেধ নেই। তবে হতদরিদ্রদের ক্ষেত্রে কর আদায় সমীচিন নয় বলে মন্তব্য করেন ময়মনসিংহ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম।

ইউনিয়ন পরিষদের একটি সূত্র জানায়, বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা-ছিন্নমূলক উন্নয়ন সোসাইটির পরামর্শেই হতদরিদ্রদের কাছ থেকে এই কর আদায় করছে ইউনিয়ন পরিষদ।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, তালিকাভুক্ত হতদরিদ্রদের জন্য খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে প্রতিমাসে ৩০ কেজি চাল বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। একজন কার্ডধারী হতদরিদ্র ৩০০ টাকার বিনিময়ে খাদ্য বিভাগের নিয়োজিত স্থানীয় ডিলারদের কাছ থেকে প্রতিমাসে ৩০ কেজি চাল পেয়ে আসছে।

অভিযোগ উঠেছে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার খাগডহর ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের এই চাল পেতে ইউনিয়ন পরিষদকে ২০০ টাকার বাধ্যতামূলক হোল্ডিং কর দিতে হচ্ছে। খাগডহর ইউনিয়ন পরিষদ রসিদের মাধ্যমে এই কর আদায় করছে বলে অভিযোগ।

উপকারভোগীরা জানায়, ডিলারদের কাছ থেকে ৩০০ টাকার চাল নেয়ার সময় এই রসিদ দেখাতে হচ্ছে। করের ২০০ টাকার রসিদ ছাড়া হতদরিদ্রদের এই চাল দিচ্ছে না কোন ডিলার।

ইউনিয়ন পরিষদের করের টাকা দিতে না পারায় গেল সেপ্টেম্বর মাসে চাল না পেয়ে অনেকে খালি হাতে ফিরে গেছেন। খাগডহর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মীর্জাপুর গ্রামের হতদরিদ্র শিরিনা খাতুন ও রেজিয়া খাতুন অসুস্থ্য থাকায় ২টি কার্ড নিয়ে ডিলারের কাছে যান বোন জয়গুন নেছা(৫০)।

এসময় করের কোন রসিদ না থাকায় ২ জনের ৬০ কেজি চালের জন্য ৬০০ টাকার সাথে আরও ৪০০ টাকা নগদ গুণে চাল নিতে হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের হোল্ডিং করের কথা বলে বাড়তি ৪০০ টাকা আদায় করেন স্থানীয় ডিলার।

এসময় করের টাকা দিতে না পারায় অনেকে ফিরে গেছেন খালি হাতে। উপকারভোগীরা অভিযোগ করে জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরিব মানুষকে বাচাতে মাত্র ১০ টাকা কেজি দরের চাল দিয়েছেন।

অথচ খাগডহর ইউনিয়ন পরিষদ এই চাল পেতে হতদরিদ্র উপকারভোগীদের কাছ থেকে ২০০ টাকা করে হোল্ডিং কর নিচ্ছে। গরিবদের ওপর করের এই জুলুম কেন-প্রশ্ন উপকারভোগীদের। খাগডহর ইউনিয়নে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় এরকম উপকারভোগীর সংখ্য ২১২২ জন। এর বাইরে দুঃস্থ প্রতিবন্ধী, বয়স্ক, বিধবা ও ভিজিএফ উপকারভোগীরাও এই করের আওতায় পড়েছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

খাগডহর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মাহমুদুল হক কামরুল ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, সরকারের ভাবমূর্ত্তি ক্ষুন্ন করতেই চাল নিতে আসা হতদরিদ্রদের কাছ থেকে এই কর আদায় করা হচ্ছে। একই ইউনিয়নের জাতীয় পার্টির সভাপতি হাজী সিরাজুল ইসলাম জানান-এ নিয়ে আমরা বিব্রত। তিনি এ নিয়ে দুদকের তদন্ত দাবি করেন।

এদিকে এই কর আদায়ের প্রতিবাদ ও দায়ীদের বিচার দাবিতে ময়মনসিংহ মুক্তাগাছা সড়কের বেগুনবাড়ি মোড়ে ক্ষুব্ধ উপকারভোগীরা মানববন্ধনসহ সমাবেশ করেছেন।

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর