1. muktirshongbad@gmail.com : 20dailymuktirshongbadbd.com :
  2. mdkaiumjsc01643@gmail.com : Kaium Hossain :
  3. ramjanbhuiyan84@gmail.com : ramjanbhuiyan :
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৮:১৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
বহুল জনপ্রিয় দৈনিক মুক্তির সংবাদ অনলাইন পত্রিকায় সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে।  বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়,দৈনিক মুক্তির সংবাদ পত্রিকা সংবাদকর্মী নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলায়, উপজেলায়, জেলা ব্যুরো প্রধান ও বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানে কাজ আগ্রহী প্রার্থীগণ সিভি পাঠাতে পারেন। ন্যূনতম যোগ্যতা এস এস সি পাশ।চূড়ান্ত নির্বাচন প্রক্রিয়া:রিক্রুটিং টিম কোন প্রকার একাডেমিক পরীক্ষার ফল বিবেচনা করবে না। কর্মঠ, সৎ ও কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুগত প্রার্থীদের বাছাই করা হবে।E-mail :  muktirshongbad@gmail.com যোগাযোগ নাম্বার:01752602939/01710006400 ।সম্পাদক ও প্রকাশক,মোঃ মাসুদ মৃধাঃ 01933609066

রুদ্ধশ্বাস ১৫ মিনিট ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের তারে।।

  • খবর পাবলিসের সময় রবিবার, ৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ১২৬ বার পোস্টটি পড়া হয়েছে

এস এম কায়সার আশ্রাফীঃচট্টগ্রাম ব্যুরো।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিকে না জানিয়ে এবং মেইন লাইন বন্ধ না করে কাজ করতে গিয়ে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার চন্দ্রঘোনায় ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের তারে আটকে ১৫ মিনিট ধরে ঝুলে ছিলেন আবুল কাসেম (৩২) নামের এক যুবক। পরে কন্ট্রোল রুমে ফোন দিয়ে বিদ্যুতের সংযোগ বন্ধ করে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।
গতকাল শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার চন্দ্রঘোনা-কদমতলী ইউনিয়নের আধুরপাড়া এলাকায় রুদ্ধশ্বাসের ১৫ মিনিটের এ ঘটনা ঘটে। আহত যুবক আবুল কাসেম পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান জিয়া এন্টারপ্রাইজের লাইনম্যান হিসেবে কাজ করতেন।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইদ্রিছ আজগর সাংবাদিকদের জানান, তারা আধুরপাড়া এলাকার বিদ্যুৎ খুঁটিতে পুরাতন তার পরিবর্তনের কাজ করছিল। আবুল কাসেম বৈদ্যুতিক খুঁটির ওপরে উঠে কাজ করছিলেন। এসময় ১১ হাজার ভোল্টের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের কাজ করতে মেইন লাইনে হাত দিলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে লাইনে ঝুলে থাকেন তিনি। তবে কোমরে বেল্ট থাকার কারণে তিনি নিচে পড়ে যাননি। পরে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করলে তারা বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেন। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়। এ বিষয়ে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান জিয়া এন্টারপ্রাইজের কর্মকর্তার সঙ্গে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।
চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির রাঙ্গুনিয়া জোনাল অফিসের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম) জুয়েল দাশ জানান, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি মেইন লাইন বন্ধ করার জন্য গত ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদন করেছিল। কিন্তু ঠিকাদার এই সময়ের পরেও কাজ করার বিষয়টি অফিসে জানায়নি। এমনকি মেইন লাইন বন্ধের জন্য কোনো ফোনও দেয়নি। ফলে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।
তিনি বলেন, ঘটনা শুনার পর আহত শ্রমিককে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলাম। তিনি ডান হাত ও পায়ে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর